পারিবারিক বিবাদের জেরে দাদাকে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারার অভিযোগ ভাইয়ের বিরুদ্ধে

পারিবারিক বিবাদের জেরে দাদাকে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারার অভিযোগ ভাইয়ের বিরুদ্ধে।ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ধূপগুড়ি পুরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের রায় পাড়া সংলগ্ন এলাকায়।ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় দাদাকে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।স্থানীয় সূত্রে জানা যায় বাড়িতে দুই ভাইয়ের মধ্যে মাঝে মধ্যেই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পারিবারিক বিবাদ লাগতো।রবিবার দুপুরে দুই ভাইয়ের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়।সেই সময় ছোট ভাই রাইচরণ মল্লিক বড় ভাই দূর্গাচরণ মল্লিককে ছুরি দিয়ে পেটে কোপ মারে বলে অভিযোগ।ছুরি দিয়ে কোপ মারতেই ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়ে দুর্গাচরন।এরপর স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ধূপগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসে এবং অভিযুক্তকে বাড়িতে বেঁধে রাখে।আহতকে ধূপগুড়ি গ্রামীন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
খবর পেয়ে ধূপগুড়ি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ছোট ভাই রাইচরনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
দুর্গাচরনের শ্বশুড় বাড়ির লোকের অভিযোগ মাঝে মধ্যেই নেশা করে বাড়িতে অশান্তি করতো রায়চরণ।এমনকি বড় ভাইয়ের অর্থাৎ দুর্গার স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতো।এদিন বাড়িতে ছুরি দিয়ে দূর্গাচরণ মল্লিককে কোপ মারে বলে অভিযোগ করেন।পুলিশ সূত্রে জানা যায় ছুরি মারার ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।এখন পর্যন্ত কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি।পুলিশ ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত সেরেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.