সেফ ড্রাইভ সেফ লাইফ স্লোগানকে হাতিয়ার করে বাইক চালিয়ে লাদাখ পাড়ি দিলো উত্তরবঙ্গের ৫ দামাল যুবক

পথ দুর্ঘটনা কমাতে সেফ ড্রাইভ সেফ লাইফ স্লোগানকে হাতিয়ার করে ৭৫০০ কিলোমিটার পথ রয়াল এনফিল্ড বাইক চালিয়ে পাড়ি দিলো উত্তরবঙ্গের ৫ দামাল যুবক।

সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফের প্রচার চালাতে এবার মোটরবাইক নিয়ে লাদাখের উদ্দেশ্যে র‌ওনা হলেন উত্তরবঙ্গের পাঁচজন যুবক।

জানা গেছে জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও উত্তর দিনাজপুর এই তিন জেলার তিস্তা থাম্পার্স মটোরবাইক ক্লাবের ৫ সদস্য একত্রিত হন জলপাইগুড়িতে। এরপর শনিবার সকালে জলপাইগুড়ি থানা মোড় থেকে লাদাখের উদ্দ্যেশ্যে যাত্রা শুরু করেন ৫ দামাল যুবক।

শনিবার সকালে তাদের সকল‌কে পুষ্পস্তবক দিয়ে এদিন সংবর্ধনা জানান জলপাইগুড়ি ট্রফিক পুলিশের কর্তারা। মোটরবাইক নিয়ে মোট ৭৫০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবেন মোটরবাইক অভিযাত্রী‌রা।

ক্লাব সুত্রে জানা গেছে মোটরবাইক অভিযাত্রী‌রা মজফ্ফরপুর, লখন‌উ, দিল্লি, পাঠানকোট, জম্মু ও কারগিল হয়ে লাদাখের লে তে যাবেন। আর এই সমগ্র যাত্রা পথে তারা প্রচার চালাবেন সেফ ড্রাইভ সেফ লাইফের। একইভাবে তারা সচেতনতা প্রচার চালাতে চালাতে ফের জলপাইগুড়ি ফিরে আসবেন।

এই পাঁচ অভিযাত্রী‌র নাম ধ্রুবজ‍্যোতি দাস, সন্দীপ গোস্বামী, বাপী প্রধান, শুভদীপ ঘোষ ও সুজয় বসু। জলপাইগুড়ি সদর ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে থানা মোড়ে তাদের সন্মান জানিয়ে যাত্রা শুরু করা হয়।

ঘটনায় ধ্রুবজ্যোতি দাস নামে এক অভিযাত্রী জানালেন আমরা মাঝেমধ্যে এই ধরনের অভিযান করে থাকি। এবারের অভিযানের মূল উদ্দেশ্য সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ এই বার্তা সারা দেশে পৌঁছে দেওয়া। গত দু বছর ধরে করোনার কারনে আমরা কোথাও যেতে পারিনি। তাই এবারে বেরিয়ে পড়লাম।

ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ক্ষৌণীশ গুহ জানালেন পথ দুর্ঘটনা বেড়েই চলেছে। তাই মটোর সাইকেল চালালেই হবেনা। সাবধানতার সাথে বাইক চালাতে হবে। তাই মানুষকে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ এই সচেতনতা বার্তা পুরো দেশেই পৌঁছে দিতে আমাদের এই উদ্যোগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.