গাছবাড়িতে হাতি পুজোতে পর্যটকদের ভির

প্রায় ৪ মাস বন্ধ থাকার পর জঙ্গল খুলের হাতি পুজো বন দপ্তরের বিভিন্ন রেঞ্জে
শুক্রবার মালবাজার মহকুমার গরুমাড়া এবং গাছবাড়িতে বিশ্বকর্মার বাহন হাতিপুজো দেখতে পর্যটকদের ঢল নামল।প্রতিবছরের ন্যায় এবছরও নিয়ম নিষ্ঠার সাথে ধুমধাম করে পালন করা হয় হাতি পুজো। গ্রামবাসিদের সাথে পর্যটকেরাও পুজোতে অংশ নেয়।তারাও এদিন সকাল থেকে উপোস করে থাকে পুজো শেষ না হওয়া পর্যন্ত। হিলারি, ভোলানাথ, বসন্ত, ভাল্গুনি, ডায়না বর্ষন এই ছয়টা কুনকি হাতিকে এদিন পুজো করা হয়। অন্য দিকে গরুমারায় ১৭ টি কুনকি হাতির পুজো হয়।

সকাল সকাল হাতিদের মুর্তি নদিতে ঘসে মেজে স্নান করানো হয়।এরপর তাদের রঙ বেরং এর চক দিয়ে সাজানো হয়। গায়ে প্রতি হাতির নাম লিখে দেওয়া হয়।তাদের পুজো মন্ডপে নিয়ে আসা হয়। শংক্ষ্য বাজে। উলুধ্বনি দেওয়া হয়।পুরোহিত নিয়মনীতি মেনে মন্ত্র উচ্চারন করে পুজো করে। পুজো শেষ হলেই হাতিদের ভালমন্দ খাওয়ান হয়। পর্যয়কেরাও কলা, আপেল সহ অনান্য ফলমুল হাতিদের নিজের হাতে খাইয়ে দেন। শেষে গ্রামবাসি ও পর্যটকেরা বসে একসাথে ভুড়ি ভোজন করে। সব মিলিয়ে ডুয়ার্সে বেড়াতে এসে বিশ্বকর্মা পুজোর দিন হাতি পুজোতেই মেতে ওঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.