উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস

উত্তরবঙ্গে তড়িঘড়ি বর্ষা ঢুকে পড়লেও আপাতত থমকে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর বলছে, ১৩ জুনের আগে দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমী বায়ু ঢোকার সম্ভাবনা কম। বুধবারের আগে মৌসুমী বায়ুর অগ্রগতির সম্ভাবনা খুব কম বলেই মনে করছেন আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা। উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। উপরের দিকের পাঁচ জেলাতে ভারী বৃষ্টি চলবে। দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার জেলাতে ভারী বৃষ্টি সঙ্গে দমকা বাতাসের পূর্বাভাস। মালদহ, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে |

দক্ষিণবঙ্গে গরম ও চরম অস্বস্তিকর আবহাওয়া। সকাল থেকে ঘামে প্যাচপ্যাচে গরম। ঝড়বৃষ্টিতে স্বস্তি মিলতে পারে সন্ধের দিকে। আজ পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, পূর্ব মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলাতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সঙ্গে দমকা ঝোড়ো হাওয়া বওয়ার সম্ভাবনা। বাকি জেলাতেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনা। বজ্রপাতের আশঙ্কা থাকবে। কলকাতায় স্থানীয় বর্জ্রগর্ভ মেঘ থেকে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনা। তবে আপাতত দক্ষিণবঙ্গে ঝেঁপে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পূর্ব-পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূমে গরম ও অস্বস্তিকর আবহাওয়া চলবে। তাপমাত্রা বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়বে অস্বস্তি। শুক্রবার থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনা আরও কমবে এবং বাড়বে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি।

শুধুমাত্র পার্বত্য এলাকায় পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে সামান্য বৃষ্টির সম্ভাবনা। কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা 29 ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 35 ডিগ্রি। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ 39 থেকে 91 শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *